বুধবার ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮  ৫ পৌষ ১৪২৫, ৯ রবিউস সানি, ১৪৪০ Untitled Document

ফেনীতে শিশু শিক্ষার নামে বাণিজ্য ও প্রতারণা!

Untitled Document
হালনাগাদ :২০১৮-১২-০৫, ১০:৫৩

স্টাফ

-    উদ্দেশ্য শুধুমাত্র ব্যবসা
-    নেই মানসম্মত শ্রেণিকক্ষ
-    নেই অভিজ্ঞ শিক্ষক
-    নেই বিনোদনের ব্যবস্থা

স্টাফ রিপোর্টার:
ফেনীতে শিশু শিক্ষার নামে বাণিজ্য ও ভয়াবহ প্রতারণা চলছে। এসব অনুমোদনহীন প্রতিষ্ঠানগুলো শিক্ষার নামে প্রতারণা করে অভিভাবকদের কাছ থেকে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। এছাড়া এসব প্রতিষ্ঠানে নেই কোন প্রশিক্ষিত শিক্ষক, অবকাঠামো ও খেলার মাঠ। বছরের শুরুতে নির্ধারিত সংখ্যক শিক্ষার্থী সংগ্রহের টার্গেটে কোমর বেধে মাঠে নামে এসব প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মকর্তারা। কমিশন দেয়ার চুক্তিতেও শিক্ষার্থী সংগ্রহ করে। বছরজুড়ে শিশু শিক্ষার নামে প্রতারণা করলেও এসব প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে কোন প্রদক্ষেপ নিচ্ছেনা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।
প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, প্রাক প্রাথমিক স্কুল চালুর ক্ষেত্রে যোগ্য ও অভিজ্ঞ শিক্ষক মন্ডলী নিয়োগ, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের আশপাশে পর্যাপ্ত ও উম্মুক্ত খেলার মাঠের ব্যবস্থা ও অভিভাবকদের মধ্যে সচেতনতা বাড়ানোর প্রতি গুরুত্ব দেয়া হয়।
প্রাথমিক শিক্ষার লক্ষ্য হচ্ছে, বিনোদনমূলক প্রাক প্রাথমিক শিক্ষার মাধ্যমে শিক্ষার প্রতি ঝোক তৈরী করা। শিক্ষার্থীকে মানসিক ও শারিরিকভাবে প্রস্তুুত করা, কৌশলগত ভাবে শিশুদের মাঝে সামাজিকীকরণ শিক্ষাদান, শিশুদের নাচ, গান, আবৃত্তি, চিত্রাংকন, গল্প বলা, গণনা ও বর্ণমালা শিক্ষার ক্ষেত্রে দক্ষতা ও আত্মবিশ^াস তৈরীর মাধ্যমে শিক্ষার্থীর মন থেকে বই ও স্কুল ভীতি দূর করা। গণস্বাক্ষরতা অভিযান ও এডুকেশন ওয়াচ প্রতিবেদনেও শিশু শিক্ষায় এ সকল বিষয়কে অত্যাধিক গুরুত্ব দেয়া হয়েছে।
জানা যায়, ফেনী শহরসহ জেলার সর্বত্র অলিতে গলিতে গড়ে উঠছে কিন্ডার গার্টেন নামের শিশু শিক্ষালয়। প্রতিষ্ঠান গুলোতে নেই কোন দক্ষ ও প্রশিক্ষিত শিক্ষক, নেই অবকাঠামো, নেই কোন খেলার মাঠ। কোন কোন ক্ষেত্রে একটি বাড়ীর কয়েকটি কক্ষ ভাড়া নিয়েই শুরু করা হয়েছে কোমলমতি শিশুদের পাঠশালা। আবার কিছু কিছু কিন্ডার গার্টেন সাইনবোর্ডে স্কুল এন্ড কলেজ প্রচার করে পাঠদান করছে তৃতীয় থেকে পঞ্চম শ্রেনী পর্যন্ত। এসএসসি পাশ শিক্ষক দিয়ে চলছে শ্রেনী কার্যক্রম। কোন রকম গাদাগাদি করে বসিয়ে চালিয়ে যাচ্ছে শ্রেনী কার্যক্রম। ফেনী জেলা স্কুল, হোপ ইন্টারন্যাশনাল স্কুল, ক্যামব্রিজ ইন্টারন্যাশনাল স্কুল, ক্যামব্রিয়ান স্কুল, দারুস ছালাম মাদরাসাসহ বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠান দেশের খ্যাতিমান প্রষ্ঠিানের সাইনবোর্ড ব্যবহার করে প্রতারণা করে যাচ্ছে। এছাড়াও ফেনী পিস স্কুল নাম পাল্টিয়ে প্রেসিডেন্সি নাম ধারন করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের আইন অমান্য করে শিক্ষা কার্যক্রম চালিয়ে আসছে।
এদিকে শিশু শিক্ষায় প্রতারণায় পিছিয়ে নেই ফেনীর গ্রামীন জনপদের খেটে খাওয়া মানুষ। তারা অতি মুনাফার লোভে গ্রামের মক্তব ঘর, কাঁচারী ঘর, পরিত্যাক্ত ভবনে চালু করে দিয়েছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। তবে শহরের তুলনায় গ্রামের বেশির ভাগ কিন্ডারগার্টেনে খেলাধূলার মাঠ রয়েছে। 
আবদুল আলিম নামের এক অভিভাবক জানান, ফেনীতে তার এক আত্মীয়ের অনুরোধ ৩ সন্তানকে একটি কিন্ডার গার্টেনে ভর্তি করান। তিনি ভর্তিকালীন ২ জনের জন্য ২৫ হাজার টাকা ওই স্কুলকে পরিশোধ করেন। কিন্তু কয়েকমাস পর জানতে পারেন স্কুলটির শিক্ষকদের মধ্যে ৩ জন রয়েছেন এসএসসি পাশ। তাদের মাসিক বেতন ১ হাজার টাকা করে। কোন রকম প্রাইভেট টিউশন করে প্রতিষ্ঠানটির শিক্ষকরা আয় রোজগার করে থাকেন। শ্রেনী কার্যক্রমেও নেই তাদের কোন প্রশিক্ষন বা অভিজ্ঞতা। এসব কিছু জানার পর তিনি নিরুপায় হয়ে ওই প্রতিষ্ঠান থেকে তার সন্তানদের অন্য একটি প্রতিষ্ঠানে নিয়ে ভর্তি করান। ওই বছরেই স্কুলটি নীট লাভ করে প্রায় সাড়ে ৩ লক্ষ টাকা। এভাবেই চলছে ফেনীর অধিকাংশ স্কুলের শিক্ষা বাণিজ্য।  
ফেনী সদর উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মো সাইফুর রহমান জানান, বেসরকারীভাবে গড়ে ওঠা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে মান সম্মত শিক্ষা নিশ্চিত না করতে পারলেও এ সব প্রতিষ্ঠানের ব্যাপারে আইনগত কোন পদক্ষেপ নেয়া যাচ্ছে না। যার কারনে দিন দিন এসব প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে।

ফেনী সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মামুন জানান, আমাদের সমাজের কিছু শিক্ষিত বেকার যুবক চাকুরীর অভাবে একত্রিত হয়ে ছোট খাটো শিক্ষা প্রতিষ্ঠান চালু করে। এতে করে একদিকে বেকার সমস্যা দূর হচ্ছে। অন্যদিকে শিক্ষার আলো ছড়াচ্ছেন তারা। কিন্তু বর্তমান সময়ে বেশিরভাগ প্রাথমিক শিক্ষালয় নীতি-নৈতিকতা বিসর্জন দিয়ে শুধুমাত্র বাণিজ্য নির্ভর হয়ে পড়েছে। এতে করে শিক্ষার গুণগত মান নষ্ট হচ্ছে এবং শিশু শিক্ষার বিষয়ে সচেতনদের মাঝে বিরূপ মনোভাব সৃষ্টি হচ্ছে।
 

December 2018

SunMonTueWedThuFriSat
1

2

3

4

5

6

7

8

9

10

11

12

13

14

15

16

17

18

19

20

21

22

23

24

25

26

27

28

29

30

31

সর্বাধিক পঠিত
জেলা সংবাদ
সংশ্লিষ্ট সংবাদ